মাধ্যমিক , উচ্চমাধ্যমিকের প্রশ্ন ফাঁসের কেলেঙ্কারি রুখতে শিক্ষকদের উপর ভরসা হারাল সংসদ!!!


প্রশ্ন ফাঁসের কেলেঙ্কারি রুখতে আরও কড়া পদক্ষেপ নিল মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ড৷ এতদিন বোর্ডের নির্দেশে শর্তসাপেক্ষে মাত্র চার জনের কাছে মোবাইল রাখতে পারতেন৷ কিন্তু, এবার থেকে তাও আর রাখা যাবে না৷ পরীক্ষা চলাকালীন মোবাইল ব্যবহারের উপর সম্পূর্ণ বিধিনিষেধ চাপিয়ে নির্দেশিকা প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষকদের পাঠানো হয়েছে বলে বোর্ড সূত্রে খবর৷শহর-গ্রামের বিভিন্ন স্কুলের মধ্যে পরীক্ষা চলাকালীন জানালা এবং দরজার মধ্য দিয়ে ছোট ছোট কাগজের চিরকুট কে দেওয়ার মতন অনেক দৃশ্যই এতদিন ভাইরাল হয়েছে এবং তাই দেখেই নড়ে বসে সরকার। তাই এই নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে সংসদ এবং তাতে এই ধরনের কোন রকমের বাজে কাজ কর্ম যাতে একেবারেই না হয় তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

এতদিন পরীক্ষা পরিচালনায় সেন্টার ইন চার্জ, সেন্টার সেক্রেটারি, ভেনু সুপারভাইজার এবং কাউন্সিল মনোনীত প্রতিনিধিরা ফোন রাখতে পারতেন৷ কিন্তু গত বছর মাধ্যমিকে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছনোর আগেই যেভাবে প্রশ্নফাঁস হয়ে হওয়ায় এবার কোনও রকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না সংসদ৷ প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি নিজেদের লোকজনের উপরই ভরসা রাখতে পারছেন না সংসদ কর্তারা?

শিক্ষক প্রতিনিধিদের উপর বিধিনিষেধ চাপানোর পাশাপাশি পরীক্ষাকেন্দ্রে পর্যাপ্ত পুলিশি মোতায়েন ব্যবস্থাও রাখা হচ্ছে৷ সংসদের তরফে দেওয়া নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, উচ্চ মাধ্যমিকের পর একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত মোতায়েন থাকবে পুলিশ৷ পরীক্ষার দিনগুলিতে সকাল সাড়ে ৭টার মধ্যে স্কুলে পৌঁছে যেতে হবে পুলিসকর্মীদের৷ সাধারণত প্রশ্নপত্র পৌঁছনো ও পরে উত্তরপত্র সংসদে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্বে একদল পুলিশ থাকে৷ আরেক দল থাকে স্কুলে নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য৷ এবার একাদশ পরীক্ষা শেষ হওয়া পর্যন্ত স্কুলে পুলিশি ব্যবস্থা থাকবে৷

এই রকম আরও বিভিন্ন নিউজ সম্বন্ধে জানতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক করে রাখুন। Netdarpan এর ফেসবুক পেইজ লাইক করার সাথে সাথে আমাদের ওয়েবসাইট কে subscribe করে রাখুন সকল নিউজ তৎক্ষণাৎ আপনার কাছে পৌঁছে যাওয়ার জন্য। ধন্যবাদ।।

0 Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.