বোর্ডে অঙ্ক কষছেন শিক্ষিকা, পিছনে বসে মদ খাচ্ছে দুই ছাত্রী !! বিস্তারিত জানুন 👇

‘‘বাবা মদ খায় রোজ রাতে, লুকিয়ে টেস্ট করতে করতেই ভালো লেগে গেছে,’’ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের মুখে এমন কথা শুনে তাজ্জব বিদ্যালয়ের শিক্ষিকারা। সেই সময়ে ছাত্রীদের তখন খুব একটা হুঁশ নেই। মদের নেশায় টলতে টলতেই একটানা ভুল ভাল বকে যাচ্ছে। তাদের সামলাতেই হিমশিম শিক্ষিকা থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষ। এ দিকে ইতিমধ্যে মদ্যপ ছাত্রীদের কার্যকলাপ দেখে ক্লাসেও তখন শুরু হয়েছে হই চই। সব মিলিয়ে দিশাহারা অবস্থা সরকারি স্কুলের।

অন্ধ্রপ্রদেশের একটি সরকারি স্কুলে এই অকল্পনীয় ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার। ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাট্টু সুরেশ কুমার জানিয়েছেন, দুই ছাত্রীই নবম শ্রেণিতে পাঠরত। তাদের কাছ থেকে মদের বোতল আর সফট ড্রিঙ্কসের ক্যান পাওয়া গেছে যেগুলো তারা পান করেছিল। দু’জনেরই অভিভাবকদের ডেকে পাঠানো হয়েছে বিদ্যালয়ে। আপাতত ওই ছাত্রীদের স্কুল থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।



গতকাল নবম শ্রেণির অঙ্কের ক্লাস নেওয়ার সময়ে শিক্ষিকা এই ঘটনাটি ধরে ফেলেন। বোর্ডের দিকে ফিরে অঙ্ক কষতেই কষতেই তাঁর নাকে আসে অ্যালকোহলের গন্ধ। আর সেই সঙ্গে হালকা ফিসফাস শব্দ। পিছনে ফিরে ছাত্রীদের চুপ থাকার উদ্দেশ্যে বকাবকিও করেন তিনি। ফের পিছনে ফিরলে একই রকম আওয়াজ আসতে থাকে । শ্রেণী কক্ষে গন্ধটাও তীব্র হচ্ছিল ধীরে ধীরে। শেষে ক্লাস ঘুরে তিনি আবিষ্কার করেন পিছনের সারিতে বসে ঢুলছে দুই ছাত্রী। তাদের বেঞ্চের কাছেই গন্ধটা বেশ কড়া। খুঁজে পেতে ডেস্কের ভিতরে মেলে মদের বোতল আর সফট ড্রিঙ্কসের ক্যান। ছাত্রীরাই জানায় দু’টো মিশিয়ে দিব্যি চুমুক দিয়ে যাচ্ছিল তারা।

শিক্ষিকা জানিয়েছেন, ছাত্রীদের যখন ধরে বেঁধে প্রধান শিক্ষকের অফিসে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, তখন তাদের চোখ লাল, মাটিতে গড়াগড়ি দেওয়ার মত অবস্থা। প্রধান শিক্ষকের জেরার মুখে তারা জানায়, বাড়িতে বাবা, কাকাদের দেখেই মদ খাওয়া শিখে গেছে। লুকিয়ে রোজ মদের বোতলে চুমুক দিতে দিতেই নেশা ধরে গেছে সাঙ্ঘাতিক ভাবে। যদিও ছাত্রীদের বেশি বকাবকি না করে তাদের কাউন্সেলিং করা হবেই বলেই জানিয়েছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।
এই রকম আরও বিভিন্ন নিউজ সম্বন্ধে জানতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক করে রাখুন। Netdarpan এর ফেসবুক পেইজ লাইক করার সাথে সাথে আমাদের ওয়েবসাইট কে Subscribe করে রাখুন সকল নিউজ তৎক্ষণাৎ আপনার কাছে পৌঁছে যাওয়ার জন্য।। এতে পশ্চিমবঙ্গ , ভারতবর্ষ এবং সারা বিশ্বের বিভিন্ন কোনায় ঘটে ধাকা বিভিন্ন রকমের খবর সম্বন্ধে আপনারা বিস্তারিতভাবে সম্পূর্ণভাবে আপডেটেড থাকতে পারবেন। ধন্যবাদ।।

0 Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.