২৮ই জানুয়ারি এরমধ্যে পাঁচ লক্ষ ভোট কর্মীর নাম নথীভুক্তর মাধ্যমে লোকসভা ভোটের কাজকর্ম জোরকদমে শুরু !!


নির্বাচন কমিশন থেকে নির্দেশের কথা জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক আরিজ আফতাব । এবার ই প্রথম অনলাইন ভোট কর্মীদের নাম নথিভুক্ত করা হচ্ছে। চলছে সরকারি কর্মী এবং অফিসারদের নাম নথিভুক্ত করার কাজ ।গোটা রাজ্যে কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ ভোট কর্মীর নাম নথিভুক্ত করা হবে ।

শুধু ভোট কর্মী নয়, অফিসারদের নামের তালিকা তৈরি করার কাজ চলছে । নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে লোকসভা ভোটে রাজ্যের সংখ্যা প্রায় 79 হাজার পোলিং অফিসার অফিসার মিলিয়ে ভোট কর্মী দরকার অর্থাৎ ন্যূনতম ভোট কর্মী দরকার এছাড়াও তালিকায় অতিরিক্ত 10 শতাংশের নাম রাখা হয় কেউ অসুস্থ হলে বা যেতে না পারলে পরিবর্তন হিসেবে তাকে ডিউটিতে নেওয়া হয়। এই ভোট কর্মীদের নাম ,ঠিকানা, ব্যাংক একাউন্ট তথ্য দপ্তর এ কর্মরত তারা মোবাইলের নাম্বার দিয়ে বিভিন্ন রকমের জিনিস উল্লেখ করা হয়। রাজ্য সরকারি কর্মচারী হতে হয় ।এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ভোটের অবস্থা সরাসরি জানতে পারবে প্রিসাইডিং অফিসার। কমিশনের অফিসার পরিস্থিতির ওপর নজরদারি চালাতে পারবে দিল্লি থেকেও।

পঞ্চায়েত ভোটের গণতন্ত্রের গলাটিপে হত্যা করার মত ঘটনা ঘটেছিল ।তার জন্য এবার ভোট নিয়ে অনেক বেশি সজাগ রয়েছে নির্বাচন কমিশন ।যে সব এলাকায় এখনো কোন মোবাইল নেটওয়ার্ক নেই সেখানে স্থাপন করতে বলা হয়েছে মোবাইল সংস্থাগুলোকে ।নির্দেশ দিয়েছে কমিশন অফিসার ।এর পাশাপাশি প্রতিটি নির্বাচন কমিশন এর নামের তালিকা তৈরি করতে বলা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী এবং অফিসার এমনকি কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ সংস্থার কর্মচারী মায়ের নামের হিসেবে নিযুক্ত করা হচ্ছে আর মাসখানেকের মধ্যেই লোকসভা ভোট ঘোষণা হতে চলেছে। তার আগে পরিকাঠামো তৈরি করার কাজ শেষ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।তার প্রধান অঙ্গ হিসেবে ভোট কর্মী এবং মায়ের নাম তালিকা তৈরি করার কাজ জোরকদমে চলছে।এই হোম তদন্ত কাজ কর্মকে যেভাবেই হোক, এক মাসের মধ্যে শেষ করে দেওয়ার মতন পরিকল্পনা রাখছে নির্বাচন কমিশন।

আগামীতে আরো কি হতে চলেছে সে সকল প্রকার খবরা-খবর জানবার জন্য অবশ্যই আমাদের নেটদর্পণ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট কে সাবস্ক্রাইব করুন এবং আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক করুন। এরকম আরও বিভিন্ন রকমের খবর খবর সম্বন্ধে সবসময় আপডেটেড থাকবার জন্য। ধন্যবাদ।।

0 Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.