Banking Exam-এর জন্য সহজ ভাষায় ব্যাঙ্কিং এর কিছু তথ্য

REPO রেট—

REPO বা Re Purchase Option মানে যে হারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বাকি ব্যাঙ্কগুলির থেকে সরকারী সিক্যুরিটিগুলি নিজের কাছে জমা রেখে টাকা ধার দেয়। এবারে প্রশ্ন হল সরকারী সিক্যুরিটি কেন? কারণ ব্যাঙ্ক যদি ফেল করে তাহলে সেই সমস্ত সিক্যুরিটি বেচে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক তার টাকা বুঝে নেবে। এটা অনেকটা গৃহঋণ এর মতন, যেখানে বাড়ির দলিল জামিন রেখে টাকা ধার করতে হয়।


Reverse REPO রেট—

এটা হল REPO এর উল্টো। অর্থাৎ যখন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বাকি ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে টাকা ধার নেয় সরকারী সিক্যুরিটি গুলির বিনিময়ে। এই সুদের হার REPO রেটের থেকে কম হয়। কেন? আমরা যখন ব্যাঙ্কে টাকা রাখি তখন সুদ কম পাই, কিন্তু ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিতে গেলে বেশি সুদ গুনতে হয়। তেমনি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক হল সমস্ত ব্যাঙ্কের ব্যাঙ্ক।

এই REPO এবং Reverse REPO হল অর্থনীতির Liquidity Adjustment Facility এর হাতিয়ার। এর দ্বারা মূলত অর্থনীতিতে টাকার যোগান নিয়ন্ত্রণ করা হয়। একে Liquidity Corridor ও বলা হয়ে থাকে।

Marginal Standing Facility —

ধর কোনও ব্যাঙ্কের রাতারাতি কিছু টাকার দরকার পড়ল, আদানি বা বিজয় মালিয়া হয়তো লোন নেবে। এত কম সময়ে টাকা পেতে গেলে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক আগে দেখবে সেই ব্যাঙ্কের কত Net Demand and Time Liabilities (NDTL) আছে, অর্থাৎ মোট কত টাকা পাবলিক বা অন্য ব্যাঙ্ককে ফেরৎ দিতে হবে। এর ২ শতাংশ অবধি ঋণ সেই ব্যাঙ্ক পেয়ে যেতে পারে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের থেকে। এটি হল Marginal Standing Facility, অর্থাৎ সেই ব্যাঙ্কের সম্মান রাখার জন্য তার পাশে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দাঁড়ানো।

Bank Rate—

এর মানে যে হারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বাকি ব্যাঙ্কগুলিকে টাকা ধার দেয়। তাহলে REPO এবং Marginal Standing Facility এর সাথে এর তফাৎ কি রইল?
REPO এর ক্ষেত্রে সরকারী সিক্যুরিটিগুলি বন্ধক রাখা হয়, কিন্তু এক্ষেত্রে রাখা হয় না। তার মানে এটি হল পার্সোনাল লোনের মতন। পার্সোনাল লোনে সুদের হার গৃহঋণের থেকে বেশি হয় জানি। এখানেও তাই। REPO রেটের থেকে Bank Rate বেশি হয়।

Marginal Standing Facility এর ক্ষেত্রে ২ শতাংশের গ্যাঁড়াকলটি আছে, এক্ষেত্রে সেটিও নেই। কাজেই সুদ তো বেশি গুনতেই হবে বাছা।

Cash Reserve Ratio বা CRR—

প্রতিটি ব্যাঙ্ককে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কাছে তাদের সিন্দুকে জমানো টাকার একটি অংশ জমা রাখতে হয়। এটিকে CRR বলে। এর জন্য ব্যাঙ্ক কোনও সুদ পায় না। এটি নিয়ে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কম সমালোচনা হয় নি। বড় বড় কোম্পানিগুলি সরকারকে অনেক কথা শুনিয়েছে। কারণ এই টাকা জমা না রাখতে হলে তাদের ব্যাঙ্ক থেকে লোন পেতে লাইনে দাঁড়াতে হত না। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাঙ্ক এটি করে কেন? কারণ বেশি টাকা বাজারে এলে টাকার দাম কমে যাবে, ফলে মুদ্রাস্ফীতি হয়ে জিনিসপত্রের দাম হু হু করে বাড়বে। সরকারের গদি বাঁচাতে এটি করা হয় আর কি।
সাধারণত এটি ৪ শতাংশ হয়ে থাকে। অর্থাৎ ব্যাঙ্কের জমানো ১০০ টাকার মধ্যে ৪ টাকা রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কাছে আটকে রাখতে হয়।

Statutory Liquidity Ratio (SLR)—

শুধু CRR নয়, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক SLR এর জুজু দেখিয়েও ব্যাঙ্কগুলিকে ত্রস্ত করে রাখে। এই SLR হল সেই অনুপাতটি যেটি ব্যাঙ্কগুলিকে নিজের টাকাটি নিজের সিন্দুকে ভরে রাখতে হয় বাজারে না খাটিয়ে। কি অবস্থা! নিজের টাকা অথচ নিজে খাটাতে পারব না। মোটামুটিভাবে ১৮-২৫ শতাংশের মধ্যে এই অনুপাতটি ঘোরাঘুরি করে। অর্থাৎ প্রতি ১০০ টাকার মধ্যে ৪ টাকা রিজার্ভ ব্যাঙ্কে জমা রাখার পরে নিজের সিন্দুকে ১৮-২৫ টাকা আটকে রাখ। অর্থাৎ বাকি টাকা বাজারে খাটিয়ে যা রোজগার করার কর গিয়ে। এই জন্য কি হয় জান? জমা খাতায় সুদ মেরেকেটে ৪ শতাংশ, ফিক্সড জমায় ৬-৭ শতাংশ। অথচ ব্যাঙ্ক থেকে টাকা ধার নেওয়ার সময় আম আদমিকে ১০ শতাংশ হারে সুদ গুনতে হয়।

0 Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.