EPF থেকে GPF সংক্রান্ত কয়েকটি তথ্য যা আপনার জেনে রাখা উচিৎ! বিস্তারিত জানুন👇

এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ড (Employee Provident Fund) ও জেনারেল প্রভিডেন্ট ফান্ডের (General Provident Fund) মধ্যে কয়েকটি পার্থক্য আছে ৷ বেতন থেকে একটা অংশ কেটে নিয়ে সেটি ইপিএফ অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে৷ বেতুনভুক কর্মীদের ক্ষেত্রে সেটি বাধ্যতামূলক৷ আর জিপিএফের সুবিধা শুধু সরকারি কর্মীরা পেয়ে থাকেন৷ এই দুটি সঞ্চয় প্রকল্পের সুদের হার নিয়মিত ব্যবধানে সরকার ঠিক করে থাকে। দেখুন ইপিএফ ও জিপিএফ নিয়ে কয়েকটি তথ্য ৷

ইপিএফ অ্যাকাউন্ট: কোনও একটি সংস্থার কর্মীর সংখ্যা ২০-র বেশি হলে সেখানে ইপিএফের সুবিধা দেওয়া বাধ্যতামূলক৷ এখানে কর্মী ও সংস্থা একই হারে টাকা জমিয়ে থাকে৷ গত মাসে ইপিএফের সুদের হার বেড়ে হয়েছে ৮. ৬৫ শতাংশ৷ চাকরি ছেড়ে দেওয়ার সময় ইপিএফ বন্ধ করে দেওয়া যায়৷ তাছাড়া নতুন কোনও সংস্থায় যোগ দিলে সেখানে টাকাটা স্থানান্তরও করে নেওয়া যায়৷ ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে ইপিএফ অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা যায়৷

জিপিএফ অ্যাকাউন্ট: নিজের বেতনের কিছুটা দিয়ে জিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন৷ জিপিএফের সুদের হার ৮ শতাংশ। কোনও কর্মী সাসপেন্ড না থাকলে অন্য সমস্ত সময় জিপিএফ অ্যাকাউন্টের সুবিধা পাওয়া যায়৷

Join Our WhatsApp GroupWhatsApp-Logo Click here.png

এই রকম আরও বিভিন্ন নিউজ সম্বন্ধে জানতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক করে রাখুন। Netdarpan এর ফেসবুক পেইজ লাইক করার সাথে সাথে আমাদের ওয়েবসাইট কে Subscribe করে রাখুন সকল নিউজ তৎক্ষণাৎ আপনার কাছে পৌঁছে যাওয়ার জন্য।। এতে পশ্চিমবঙ্গ , ভারতবর্ষ এবং সারা বিশ্বের বিভিন্ন কোনায় ঘটে ধাকা বিভিন্ন রকমের খবর সম্বন্ধে আপনারা বিস্তারিতভাবে সম্পূর্ণভাবে আপডেটেড থাকতে পারবেন। ধন্যবাদ।।

0 Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.